‘আমি ইম্প্রুভ করছি, কিন্তু ওষুধ কোম্পানি ডাকাতি করছে’

জীবনযাত্রা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। মঙ্গলবার (২ জুন) রাতে জাগো নিউজের কাছে নিজের সুস্থতার কথা জানান তিনি।

দেশে দিন দিন করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছেই। লকডাউন তুলে দেয়ায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কিন্তু এ রোগের চিকিৎসায় অনেক ওষুধের দাম ধরাছোঁয়ার বাইরে। এ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন ডা. জাফরুল্লাহ।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি ইম্প্রুভ করছি। ভালো বোধ করছি। কিন্তু আমি একটা ওয়ার্নিং (সতর্ক) করি। দেশের সামনে খুব খারাপ অবস্থা আছে। ছোট ছোট ঢেউ, বড় ঢেউ সৃষ্টি করে। যখন অনেক মানুষ আক্রান্ত হবে, তখন ওষুধ কিনতে পারবে না। আইসিইউ দিতে পারবে না। সেই সুযোগ নিয়া ওষুধ কোম্পানিগুলো ডাকাতি করছে। সরকারকে ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। দাম নিয়ন্ত্রণের এটাই উপযুক্ত সময়।’

এদিকে আজ রাত সাড়ে ৯টার দিকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বলা হয়, ‘গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আশানুরূপ উন্নতি হয়েছে। তিনি গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের কেবিন বেডে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গত দুদিন সামান্য শ্বাসকষ্ট থাকলেও বর্তমানে ভালো আছেন বলে তিনি জানান।

উনার স্ত্রী মানবাধিকার কর্মী শিরীন হক ও ছেলে বারীশ হাসান চৌধুরী করোনা পজেটিভ হলেও বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং সুস্থ আছেন। তিনি নিজের ও পরিবারের জন্য দোয়া চেয়েছেন এবং দেশবাসীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *